কলেজ বিধি

কলেজের প্রত্যেক শিক্ষার্থীর ভদ্র, শালীন ও আদর্শ শিক্ষার্থীসুলভ আচরণ বাঞ্ছনীয়। ক্লাসে যথাসময়ে উপস্থিতি, পাঠাগার ও গবেষণাগারে নীরবতা, পরিচ্ছন্নতা ও শৃঙ্খলা একান্তভাবে কাম্য। শিক্ষার্থীদের নিম্নোক্ত আচরণবিধি মেনে চলা আবশ্যক:

* সকল শিক্ষার্থীর নির্ধারিত পোশাকে পরিচয়পত্রসহ প্রতিদিন ক্লাস শুরুর কমপক্ষে ১৫ মিনিট পূর্বে কলেজে আসা বাধ্যতামূলক, নির্ধারিত পোশাক ছাড়া কলেজ প্রাঙ্গণে প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষেধ।

* নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত থাকা, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পোশাক পরিধান করা, কথা ও কাজে সৌজন্যবোধ থাকা প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য অত্যাবশ্যক।

* কলেজ প্রশাসনের অনুমতি ব্যতীত কোনো শিক্ষার্থী কলেজের বাইরে যেতে পারবে না।

* কলেজ প্রাঙ্গণে প্রবেশের পর জরুরি অবস্থা, জটিল সমস্যা ও স্বাস্থ্যগত চরম অবনতি ছাড়া ছুটি দেয়া হবে না।

* প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে সব সময় যথাযথ, আন্তরিক ও গ্রহণযোগ্যতার ভিত্তিতে (নম্র, ভদ্র, বিনয় ও শালীন) আচরণ করতে হয়। যে কোনো ধরণের আপত্তিকর আচরণের জন্য শাস্তিমূলক ব্যবস্থা অনিবার্য।

* শিক্ষার্থীদের কোনো অবহেলা ও বিশৃঙ্খলাজনিত কারণে কলেজের কোনো সম্পদ বা যন্ত্রাংশের ক্ষতি সাধিত হলে তাদেরকেই ব্যয়ভার বহন কিংবা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

* কোনো শিক্ষার্থী শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে লিপ্ত হলে, পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করলে তাকে বাধ্যতামূলক ছাড়পত্র (TC) দেয়া হবে।

* ছাত্রদের মাথার চুল ও নখ ছোট রাখতে হবে। ছাত্রীদের হাতের ও পায়ের নখ ছোট রাখতে হবে, কোনো প্রকার অলংকার পরিধান করে কলেজে আসা যাবে না।

* শ্রেণিকক্ষের বেঞ্চ, ডেস্ক, চেয়ার, টেবিল, দেয়াল অথবা টয়লেটে কোনো কিছু লেখা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

* পাঠের অপ্রয়োজনীয় কোনো বই, লিফলেট বা দ্রবাদি কলেজে আনা বা সঙ্গে রাখা যাবে না এবং মোবাইল ফোন আনা ও ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

* কলেজ ক্যাম্পাসে ধুমপান কিংবা রাজনৈতিক তৎপরতা চালানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

* ক্লাস চলাকালীন শিক্ষার্থীর সাথে কেউ সাক্ষাৎ করতে পারবে না।

* প্রতি সেমিস্টারে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে কমপক্ষে মোট অনুষ্ঠিত ক্লাসের ৮০% উপস্থিত থাকতে হবে।

* কোনো শিক্ষার্থী ক্লাস চলাকালীন ক্লাসের বাইরে থাকতে পারবে না। কোনোক্রমেই ছুটির সময় অথবা টিফিনের সময় হৈ-চৈ করা যাবে না। বারান্দায়, শ্রেণিকক্ষের পাশে বা করিডোর দিয়ে চলাফেরার সময় কোনো রকম গোলমাল করা যাবে না।

* কলেজ ইউনিফর্ম পড়ে কলেজের বাইরে কোনো প্রকার অশোভন কাজ করেছে বলে প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।